8 views 2 secs 0 comments

সমুদ্রগামী বিদেশি জাহাজে বাড়ছে কর্মসংস্থান

In Travel
December 21, 2022
সমুদ্রগামী বিদেশি জাহাজে বাড়ছে কর্মসংস্থান

পানামা, সিঙ্গাপুর ও মধ্যপ্রাচ্যের পতাকাবাহী বিভিন্ন দেশের জাহাজে বাংলাদেশি নাবিক ও কর্মকর্তাদের চাহিদা বাড়ায় এ খাতে কর্মসংস্থান প্রতিবছরই বাড়ছে। আর এতে করে বাড়ছে রেমিটেন্স প্রবাহও।

চট্টগ্রামের সমুদ্র পরিবহন (শিপিং) কার্যালয়ের উপ-শিপিং মাস্টার জসিম উদ্দিন পাটোয়ারি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, ২০১১-১২ অর্থবছরে দেশি ও বিদেশি পতাকাবাহী সমুদ্রগামী জাহাজে মোট পাঁচ হাজার ৭৬৪ জনের কর্মসংস্থান হয়েছে।

এর মধ্যে বিদেশি জাহাজে এক হাজার ৪০ জন নাবিক ও দুই হাজার ৬০৩ জন কর্মকর্তা এবং সমুদ্রগামী দেশি জাহাজে ৮০৯ নাবিক ও এক হাজার ৩১২ জন কর্মকর্তা কাজ পেয়েছেন।
গত অর্থবছরে এ খাত থেকে বিদেশি মুদ্রা (রেমিটেন্স) বাবদ ৪৬১ কোটি ৫০ লাখ টাকা এসেছে বলে জসিম উদ্দিন জানান।

২০১০-১১ অর্থবছরে দেশি জাহাজে নাবিক ও কর্মকর্তা পদে মোট এক হাজার ৩০২ জন এবং বিদেশি জাহাজে তিন হাজার ৫৮৩ জনের কর্মসংস্থান হয়।

বাংলাদেশ মেরিন একাডেমির কমান্ড্যান্ট সাজিদ হুসাইন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “আর্ন্তজাতিকভাবে শিপিং রেটিংয়ে বাংলাদেশের উন্নতি হয়েছে। তাছাড়া কাজ আর ভাল আচরণের কারণে বাংলাদেশের ছেলেরা বিদেশিদের নজর কাড়ছে।”

সমুদ্রগামী জাহাজ সেবা: বাংলাদেশের পতাকা ওড়ে বন্দরে বন্দরে

জসিম উদ্দিন বলেন, “পানামা, সিঙ্গাপুর ও মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশের পতাকাবাহী সমুদ্রগামী জাহাজে বাংলাদেশি নাবিক ও কর্মকর্তাদের চাহিদা বেশি। ইদানিং সংযুক্ত আরব আমিরাত ও যুক্তরাষ্ট্রের পতাকাবাহী জাহাজেও বাংলাদেশিদের কর্মসংস্থান হচ্ছে।”

বাংলাদেশ মেরিন একাডেমি থেকে প্রতিবছর পাস করে কাজে যোগ দিচ্ছেন ২০০ ক্যাডেট। তাদের বেশির ভাগই সমুদ্রগামী বিদেশি জাহাজে যোগ দেন। এছাড়া বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ক্যাডেটদেরও চাহিদা রয়েছে।

সরকারি পর্যায়ে কূটনৈতিক উদ্যোগ নেওয়া হলে এবং ভিসা জটিলতা নিরসন করা সম্ভব হলে বিদেশি জাহাজে নাবিক ও কর্মকর্তাদের কর্মসংস্থানের সুযোগ আরও বাড়বে বলে সংশ্লিষ্টরা মনে করেন।

সাজিদ হুসাইন জানান, ১৯৬২ সাল থেকে ২০০৮ সাল পর্যন্ত একাডেমিতে আসন ছিল মাত্র ৫০টি। পর্যায়ক্রমে তা বাড়িয়ে ২০০ করা হয়েছে। আসন সংখ্যা আরও বাড়ানোর চেষ্টা চলছে। এর বাইরেও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে ডিগ্রি নিয়ে বের হচ্ছেন ক্যাডেটরা।

সমুদ্রগামী জাহাজে নাবিক ও কর্মকর্তা নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান হক অ্যান্ড সন্স এর মহাব্যবস্থাপক আবদুল মতিন বলেন, “বিশ্বে সমুদ্রগামী জাহাজে সবচেয়ে বেশি নাবিক ও কর্মকর্তা ফিলিপাইনের। বাংলাদেশীদের চাহিদাও দিনদিন বাড়ছে।”

এ খাতে কর্মসংস্থান আরও বাড়াতে হলে সরকারের কূটনৈতিক উদ্যোগ বাড়ানো প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেন তিনি।

সূত্রঃ বিডিনিউজ২৪

Related posts:বাংলাদেশের ইতিবাচক চিত্র তুলে ধরতে ৯ দেশের ২০ সাংবাদিক ঢাকায়ব্র্যাক ব্যাংকের মাধ্যমে কার্যক্রম বিস্তৃত করছে মানিগ্রাম ঢাকায় ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলা আজ