24 views 1 sec 0 comments

কৈলাসটিলায় নতুন গ্যাসস্তর: প্রতিদিন পাওয়া যা ২০ থেকে ২৫ মিলিয়ন ঘনফুট

In Business, Finance
December 21, 2022
কৈলাসটিলায় নতুন গ্যাসস্তর

রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা বাপেক্স সিলেটের গোলাপগঞ্জে কৈলাসটিলা গ্যাসক্ষেত্রের চার নম্বর কূপে নতুন গ্যাসস্তরের সন্ধান পেয়েছে, যা থেকে প্রতিদিন ২০ থেকে ২৫ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস পাওয়া যাবে বলে আশা করছেন কর্মকর্তারা।

পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান ড. হোসেন মনসুর রোববার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, এই নতুন স্তরের গ্যাসের মজুদ সম্পর্কে নিশ্চিত ধারণা পেতে রোববার দুপুর সাড়ে ১২টার পর পরীক্ষামূলক উত্তোলন ও ‘ড্রিলিং স্টেম টেস্ট’ (ডিএসটি) শুরু করা হয়েছে।

“এটি পুরোনো গ্যাসক্ষেত্র। গ্যাসের চাপ বাড়ানোর জন্য বেশ কিছুদিন ধরে এখানে সংস্কার কাজ চলছিল। এ কাজ করতে গিয়েই চার নম্বর কূপের কাছে নতুন এই গ্যাসস্তরের সন্ধান পাওয়া যায়।”
সব ঠিক থাকলে শিগগিরই এই স্তরের গ্যাস জাতীয় গ্রিডে সরবরাহ করা সম্ভব হবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান জানান, এই স্তরে পরীক্ষামূলক উত্তোলনে ২ হাজার ৩০০ পিএসআই (প্রেসার পার স্কয়ার ইঞ্চ) চাপ পাওয়া গেছে। এই স্তরের মোট মজুদের পরিমাণ ৪০ থেকে ৫০ বিলিয়ন ঘনফুট হতে পারে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

বাপেক্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মর্তুজা আহমেদ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “এ ক্ষেত্রে আগে তিনটি জোন ছিল। এর মাঝের ও উপরের জোনের মাঝখানে নতুন এই স্তর পাওয়া গেছে।”

সিলেট গ্যাস ফিল্ডস কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ তোফাজ্জল হোসাইন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, কৈলাসটিলার চার নম্বর কূপে গ্যাসের উৎপাদন কমে যাওয়ার পাশাপাশি পানি উঠতে থাকলে কূপ বন্ধ করে ‘ওয়ার্কওভার’ করার সিদ্ধান্ত হয়। সেই কাজ করার সময় দুই হাজার ৭২২ থেকে দুই হাজার ৭২৯ মিটার গভীরতায় নতুন এই গ্যাস স্তর পাওয়া যায়।

পট্রোবাংলার তথ্য অনুযায়ী বর্তমানে দেশে দৈনিক দুই হাজার ৭০০ থেকে তিন হাজার মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাসের চাহিদার বিপরীতে দুই হাজার ২০০ মিলিয়ন ঘনফুটের কিছু বেশি গ্যাস উৎপাদন হচ্ছে।

সূত্রঃ বিডিনিউজ২৪

Related posts:ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রযুক্তি উৎসব এইচএসসির ফল আজ :ঢাকায় রাজউক কলেজ শীর্ষে জিপিএ ৫-এ ভিকারুননিসা ঢাকার বাসের রুট সমূহ !